এখন ভারত গেলে পাক ক্রিকেটারদেরকে হেলমেট পড়ে ফিল্ডিং করতে হবে: ইমরান

প্রকাশিত: 3:18 PM, August 17, 2020

পাকিস্তান-ভারত সিরিজ না হওয়ার জন্য ভারতের বৈরিতাপূর্ণ আচরণকেই দায়ী করেছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। বিদ্যমান পরিস্থিতিতে পাক-ভারত সিরিজ হলে ভয়াবহ পরিস্থিতি সৃষ্টি হতে পারে বলেও মনে করেন পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক।

তার মতে, বর্তমান পরিস্থিতিতে কেবল আইসিসি ও এসিসির আয়োজিত টুর্নামেন্টে এই দুই দেশ মুখোমুখি হতে পারে।

চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দুদেশের ক্রিকেট দলের শেষ দ্বিপাক্ষিক সিরিজ হয়েছিল ২০১২-১৩ সালে। সে সময় ভারত সফরে গিয়ে তিনটি একদিনের আর্ন্তজাতিক ও তিনটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছিল পাকিস্তান।

এখন পাক-ভারত সিরিজ আয়োজন করা যাবে কিনা প্রশ্নে ৯২’র বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক বলেন, এখন পাকিস্তান ও ভারতের মধ্যে কোনো সিরিজ অনুষ্ঠিত হতে গেলে পরিস্থিতি আরও খারাপের দিকে যেতে পারে। বিশেষ করে মাঠে পাকিস্তানের ফিল্ডারদের সুরক্ষার জন্য হেলমেট পরতে হতে পারে।

এ সময় ১৯৮৭ সালে পাকিস্তানের ভারত সফরের তিক্ত অভিজ্ঞতার কথা স্মৃতিচারণ করেন ইমরান খান।

বলেন, ওই সফরে এমন ঘটনা ঘটেছিল যা আমি আগে কখনও দেখেনি। ওই সময় পাকিস্তানের খেলোয়াড়দের উদ্দেশে ঢিল ছোড়া হয় স্টেডিয়াম থেকে। যে কারণে আমি বাউন্ডারিতে ফিল্ডিং করা খেলোয়াড়দেরকে হেলমেট পরিয়ে দিয়েছিলাম। সেখানে খেলতে গিয়ে আমার অভিজ্ঞতা সুখকর ছিল না।

কিন্তু পাকিস্তানে ঠিক বিপরীত পরিস্থিতি দেখেছি।

ইমরান খান বলেন, ভারত যখন ২০০৫ সালে পাকিস্তান এলো, তখন যা ঘটেছে তাতে অভিভূত হতে হয়। ভারত আমাদের মাটিতে জয় পাওয়ার পর গ্যালারি ভরা দর্শককে চিৎকার ও উৎফুল্লের সঙ্গে এই আনন্দ উদযাপন করতে দেখেছি। চমৎকার এক পরিবেশ ছিল তখন।

এরপর ইমরান খান বলেন, বর্তমানে দুই দেশের মধ্যে বিরাজমান উত্তেজনাময় পরিস্থিতিতে দ্বিপাক্ষিক সিরিজ সম্ভব নয়। আমি আশঙ্কা করছি, এমনটা হলে ক্রিকেট মাঠে ভয়াবহ পরিস্থিতির উদ্ভব ঘটবে।
থ্যসূত্র: ক্রিক ট্র্যাকার