সমকামিতার নতুন জাল এখুনি সতর্ক হই: মুফতী জাবের কাসেমী

সম্পাদনা শাব্বির আহমদ সম্পাদনা শাব্বির আহমদ

এডিটর টাইমস রিপোর্ট টোয়েন্টিফোর

প্রকাশিত: 1:55 AM, July 6, 2020

সম্প্রতি আমাদের দেশে 10 মিনিট স্কুল বা রবির 10 মিনিট স্কুল নামে শিক্ষামূলক সংগঠন অনলাইনে শিক্ষা কার্যক্রমে বেশ হৈচৈ ফেলে দিয়েছে।

প্রতিদিন প্রায় ১০ লক্ষ্য শিক্ষার্থী ওয়েব সাইট, ফেসবুক কিংবা অ্যাপের মাধ্যমে বিনামূল্যে শিক্ষা গ্রহণ করে।

আরবিতে একটি প্রবাদ বাক্য আছে- كل جديدلذيذ অর্থাৎ প্রত্যেক নতুন এর স্বাদ সুস্বাদু হয়ে থাকে।

এদেশে শিক্ষা নিয়ে অনেক এনজিও কাজ করে এবং ভবিষ্যতে করবে এটাই স্বাভাবিক। কিন্তু তাদের উদ্দেশ্য কি থাকে?

প্রথম দিকে বুঝা না গেলেও শেষ পর্যন্ত কিন্তু বুঝতে আর বাকি থাকে না। তাছাড়া শিক্ষার চেয়ে বড় সেবা আর কি হতে পারে?

এজন্য তাদের থিওরি মানুষের সেবা কর। কাছে যাও। নৈকট্য লাভ কর। তারপর থিওরি বিতরণ কর। তখন সহজেই সাধারণ মানুষ গিলতে থাকবে।

আমাদের আকাবির হাকিমুল ইসলাম কারী তাইয়্যিব সাহেব রহঃ বলেন- ইংরেজরা সেবার নাম দিয়ে ভারত উপমহাদেশ দখল করেছে।

প্রায় দুইশো বছর আমাদের গোলাম বানিয়ে রেখেছে। আজ ও সেবার নামে বিশ্বব্যাপী তারা তাদের কার্যক্রম পরিচালনা করে যাচ্ছে।

এজন্য যখনি কোন ইসলাম বিরোধী শক্তি ইসলামের প্রশংসা করে তখন বুঝতে হবে এর মধ্যে কারণ আছে। দু তিনটা প্রশংসা করে মাঝে ভেজাল ঢুকিয়ে দিবে। সাধারণ মানুষ তা বুঝতেই পারবে না।

10 মিনিট স্কুলের কার্যক্রম দেখে তাই মনে হয়েছে। প্রথম দিকে নিরেট শিক্ষা কার্যক্রম থাকলেও মাঝে বিভিন্ন মতাদর্শের বীজ সু’কৌশলে বপন করতে থাকে।

যেমন মেরিটাইল রেইপের বিষয়কে সামনে রেখে আলোচনা করা। সমকামিতার সমর্থন করা। ইত্যাদি ইত্যাদি।

এসকল বিষয় দ্বারা আমাদের ছাত্র-ছাত্রী ও তরুণ- তরুণীদের মাঝে যৌন নৈরাজ্য সৃষ্টি করা হচ্ছে। পারিবারিক বন্ধন ছিন্ন করার প্রতি উৎসাহিত করা হচ্ছে। পিতা মাতার শাষনকে তার অধিকার খর্ব করা বলে আখ্যায়িত করা হচ্ছে।

বর্তমান বিশ্বে 113 দেশে আইনগতভাবে সমকামিতা বৈধ। 76 টি দেশে আইনগতভাবে অবৈধ। এশিয়ার 23টি দেশ এমন যেখানে সমকামিতাকে অবৈধ মনে করা হয়। তন্মধ্যে চারটি দেশে এর জন্য মৃত্যুদণ্ড আইন রয়েছে।

এমনকি খোদ বাংলাদেশে সমকামিতাকে আপরাধ মনে করা হয়, তবে মৃত্যুদণ্ড যোগ্য অপরাধ নয়। দণ্ডবিধির 377ধারায় সমকামিতার সর্বোচ্চ শাস্তি যাবজ্জীবন কারাদণ্ড বা অন্য কোনো মেয়াদের কারাদণ্ড,যা 10বছর ও হতে পারে।

প্রতিবেশী রাষ্ট্র ভারতে সমকামিতার পক্ষে বিগত 6সেপ্টম্বর 2018 সালে আইনিভাবে বৈধ বলে রায় প্রদান করেছে। প্রতিবেশী রাষ্ট্রে এমন আইন হওয়া বাংলাদেশে এর প্রভাব পড়া অমূলক নয়।

এর জন্য কোন সংগঠন বা এনজিও প্রচেষ্টা চালাবে না তা হতে পারে না। সুতরাং এখনি সময় সমকামিতার বিরুদ্ধে সোচ্চার হওয়ার। ছাত্র-ছাত্রী ও তরুণ- তরুণীদের ঈমান হেফাজতের। আল্লাহ আমাদের তাওফীক দান করুন। আমীন।